বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
বগুড়ার আদমদীঘি ও সান্তাহারে মাদকবিরোধী অভিযানে ৭ মাদকসেবীকে আটক। মাদারীপুর নদীর পাড়ের মাটি যাচ্ছে ইটভাটার পেটে । কুষ্টিয়ায় গড়াই নদী শুকিয়ে যাওয়ায় পানির সংকট চরমে সাংবাদিকদের মুভমেন্ট পাস লাগবে না- আইজিপি দৈনিক মুক্ত আলো পত্রিকার লোগো নকল করে প্রতারণা করছে ফাহিম ফয়সাল দেশে করোনায় একদিনে রেকর্ড ৮৩ জনের মৃত্যু বাংলাদেশের আকাশে চাঁদ দেখা গেছে, কাল থেকে রোজা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করোনা প্রতিরোধে সাধারণ মানুষের পাশে মণিরামপুর উপজেলা ছাত্রলীগ গনমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবীতে মাদারীপুরে স্মারকলিপি প্রদান।
নোটিস :
আমাদের সাইট-এ প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে,যোগাযোগ করুন>> 01712-129297>>>01712-613199>>>01926-659742>>>

অশ্লীল ভাষায় মাকে অপমান, ছেলের আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার: / ১৬০ বার
আপডেটে : বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকার ধামরাইয়ে গ্রাম্য সালিসীতে স্থানীয় এক মাতবর ছেলের সামনে মাকে অশ্লীল ভাষায় অপমান করায় ছেলে সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মৃত আব্দুল আজিজ চরডাউটিয়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে। জানা যায়, এই ঘটনায় আত্মহত্যা প্ররোচনায় মামলা হয়েছে। মামলায় মাতাব্বর মোশারফ হোসেন, নীলচানসহ অজ্ঞাত আরো দুজনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার বাদি হয়েছেন আজিজের বাবা আবদুস সালাম। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার গভীর রাতে সোমভাগ ইউনিয়নের চারডাউটিয়া গ্রামে।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীর পরিবার থেকে জানা গেছে, নিলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার কুঠিরডাঙ্গা গ্রামের আবদুস সালাম, তার স্ত্রী আয়শা, ছেলে আবদুল আজিজ (২৩) ও ছেলের বউ সাথীকে নিয়ে ভাড়া থাকেন ডাউটিয়া গ্রামের মাহতাব আলীর বাড়িতে। আজিজের বাবা দিনমজুর ও আজিজ পেশায় ছিলেন ট্রাকচালক।

আজিজের মা গত সোমবার ছেলের বউ সাথীকে নিয়ে অন্তঃসত্ত্বার বিষয়ে মেডিকেল চেকআপ করাতে যান কালামপুরে একটি ক্লিনিকে। সঙ্গে যেতে চেয়েছিলেন সাথীর মা। কিন্তু সময়ের অভাবে সাথীর মাকে নিতে পারেনি তার শাশুড়ী। এ নিয়ে আজিজের দুঃসম্পর্কের মামা শ্বশুর নীলচান সন্ধ্যা বেলায় কৈফত চান আজিজের বাবা-মার কাছে। কেন সাথীর মাকে সাথে নেওয়া হয় নি।

এনিয়ে আজিজের সঙ্গে নীলচানের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে আজিজের বিরুদ্ধে রাত ১০টার দিকে নীলচান পোলট্রি ব্যবসায়ী স্থানীয় মাতাব্বর মোশারফ হোসেনসহ চার-পাঁচজন নিয়ে পারিবারিকভাবে সালিস বৈঠক বসান। এ সালিসে মোশারফ ও নীলচান আজিজকে বাটপার ও তার মা আয়েশাকে অশ্লীল (চারিত্রিক) ভাষায় গালমন্দ করেন।

মায়ের অপমান সহ্য করতে না পেরে গভীর রাতে টয়লেটে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে আজিজ। আজিজের শ্বশুর বাড়ি মাহতাব আলীর বাড়ি সংলগ্ন দক্ষিণ পাশে। আজিজের বিধবা শ্বাশুড়ির বাড়িতে প্রায়ই যাতায়াত করতেন নীলচান। নীলচানের যাতায়াত তেমন একটি ভালো চোখে দেখতেন না আজিজ। নীলচানের বাড়ি নীলফামারী জেলার ডিমলা থানার দুলপাড়া গ্রামের মৃত সায়েদ আলীর ছেলে।

আজিজের মা আয়েশা বেগম বলেন, সালিসে মোশারফ ও নীলচান আমাকে অশ্লীল ভাষায় আমার চরিত্র নিয়ে কথা বলে। অপমানজনক কথা বলায় আমার ছেলে আজিজ সহ্য করতে পারেনি। গরিব বলে এর কোনো প্রতিবাদও করতে পারেনি। এ কষ্ট সহ্য করতে না পেরে অভিমানে আত্মহত্যা করেছে। আমি দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি চাই।

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, আত্মহত্যার প্ররোচনায় দুজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতসহ চারজনকে আসামি করে মামলা রুজু করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com