সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৭:০৯ অপরাহ্ন
Logo
শিরোনাম :
ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় নারী দিবস পালিত ময়মনসিংহের ত্রিশালে ৭ই মার্চ উপলক্ষে পুলিশের আনন্দ উদযাপন নন্দীগ্রামে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধুর আত্মহত্যা মণিরামপুরে নারী দিবসে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে মোবাইল অ্যাপসের উদ্বোধন হাল ছাড়েনিনি তিন সন্তানের জননী মর্জিনা বেগম, জীবিকার তাগীদে ঝাল মুড়ি বিক্রি মাদারীপুরে করোনার টিকা নেওয়ার ১২ দিন পর ব্যবসায়ীর মৃত্যু। শপথ নিলেন ত্রিশালের নতুন মেয়র ও কাউন্সিলররা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করছেন,বঙ্গবন্ধুর কন্যা – এমপি মিলাদ গাজী জাককানইবিতে যথাযথ মর্যাদায় ৭ মার্চ উদযাপন পাশে দাঁড়াও সেচ্ছাসেবী সংগঠনের কমিটি গঠন, সভাপতি জহির সরকার ও সম্পাদক ইকবাল
নোটিস :
আমাদের সাইট-এ প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে,যোগাযোগ করুন>> 01712-129297>>>01712-613199>>>01926-659742>>>

মহান ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন –নাজিমূল হুদা খন্দকার ও চাঁপা খন্দকার

হুমায়ুন আহমেদঃ / ২৪ বার
আপডেটে : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

হুমায়ুন আহমেদঃ বগুড়া আদমদীঘি উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ সিরাজুল ইসলাম খান রাজুর এর আস্তভাজন সর্বজন প্রিয় ব‍্যক্তিত্ব উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোঃ নাজিমূল হুদা খন্দকার ও উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা আওয়ামিলীগ সাধারণ সম্পাদক সালমা বেগম চাঁপা খন্দকার, মহান ২১শে ফেব্রুয়ারি আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, তিনি এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন “মহান শহিদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলা ভাষাভাষীসহ বিশ্বের সকল ভাষা ও সংস্কৃতির জনগণকে আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। মহান একুশে ফেব্রুয়ারি বাঙালির জীবনে শোক, শক্তি ও গৌরবের প্রতীক। ১৯৫২ সালের এ দিনে ভাষার মর্যাদা রক্ষা করতে প্রাণ দিয়েছিলেন রফিক, শফিক, সালাম, বরকত ও জব্বারসহ আরও অনেকে। মহান ২১শে ফেব্রুয়ারি আমাদের অস্হিত্বের সাথে সম্পৃক্ত। মা’য়ের ভাষার মর্যাদা রক্ষা করতে এ দেশের অনেক সুর্যসন্তান তাদের জীবন বিসর্জন দিয়েছেন, অকাতরে রক্ত ঝরেছে অনেক ভাইয়ের। পৃথিবীর ইতিহাসে ভাষার জন্য সংগ্রাম করে রাজপথে বুকের রক্ত ঢেলেছে সে নজীর একমাত্র বাঙ্গালীই সৃষ্টি করেছে। যারা সেদিন ভাষার মান রক্ষার দাবীতে আন্দোলন করেছে তার মধ্যে অন্যতম সালাম, জব্বার, বরকত, রফিক। তারা ও একটি সুন্দর জীবনের আশায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন, তাদের ও মা বাবা ভাইবোন ছিল, পড়াশুনা শেষ করে তারা একদিন পরিবারের হাল ধরবেন, সেটা ছিল তাদের স্বপ্ন, কিন্তু কুখ্যাত ইয়াহিয়া সরকার তাদের লেলিয়ে দেওয়া কুত্তা বাহিনীকে দিয়ে আমার ভাইদের নির্মম ভাবে হত্যা করে। তারা ভেবেছিলে হত্যাযজ্ঞ চালালেই বাঙ্গালী চুপ হয়ে যাবে। কিন্তু না, এ জগন্য হত্যাকান্ডের পর সারা বাংলার ছাত্রসমাজ, আবাল বৃদ্ধ বনিতা কঠোর আন্দোলন সংগ্রাম বেগবান করে, এ ভাষার মর্যাদা রক্ষা করেছে। আমরা ফিরে ফেলাম আমাদের মা’য়ের ভাষা বাংলাভাষা। বিনিময়ে হারাতে হল অনেক সম্ভাবনাময়ী বাঙ্গালী ভাইদের। গভীর শ্রদ্ধাবনতমস্তকে তাদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। এ ভাষা আমার মা’য়ের ভাষা, এ ভাষা আমার অহংকার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com