বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন
Logo
নোটিস :
আমাদের সাইট-এ প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে,যোগাযোগ করুন>> 01712-129297>>>01712-613199>>>01926-659742>>>

প্রচণ্ড উত্তাপ ছড়িয়ে ছাত্রজমিয়তের ভ্রাম্যমাণ কর্মসূচি সম্পন্ন

জুবায়ের আহমদ: / ১২৬ বার
আপডেটে : শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২০

জকিগঞ্জ  প্রতিনিধি:‘বিশ্বনবীর অপমান, সইবে না রে মুসলমান’, ‘বয়কট বয়কট, ফ্রান্সের পণ্য বয়কট’ ইত্যাদি স্লোগানে মুখরিত ছিল জকিগঞ্জের রাজপথ।

১৩ই নভেম্বর শুক্রবার মহানবী সা. কে রাষ্ট্রীয়ভাবে অবমাননা করায় ‘শানে রিসালত ভ্রাম্যমাণ মঞ্চ’ করেছে ছাত্রজমিয়ত বাংলাদেশ, জকিগঞ্জ উপজেলা শাখা। সংগঠনেরর শাখা সভাপতি মাওলানা ফয়সল আহমদ এর নেতৃত্বে সকাল ১১টায় জকিগঞ্জ বাজার থেকে গাড়ির বিশাল বহর নিয়ে শাহগলি বাজার হয়ে মেইন রোড প্রদক্ষিণ ও সংক্ষিপ্ত পথসভা করে পুণরায় জকিগঞ্জ এম. এ. হক চত্তরে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয় হাজারো তৌহিদী জনতা। জকিগঞ্জ বাজার সহ আশপাশের অঞ্চল থেকে নবীপ্রেমিক, তৌহিদী জনতা জমায়েত এম. এ. হক চত্ত্বর প্রাঙ্গণে। আলেম-ওলামা, মাদরাসার তালিবুল ইলম সহ সাধারণ মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণও ছিল চোখে পড়ার মতো।

জকিগঞ্জের শাহগলি বাজার, শাহবাগ বাসষ্ট্যান্ড, সড়কেরবাজার, আটগ্রাম ষ্ট্যন্ড, রতনগঞ্জবাজার, কালিগঞ্জ বাজার, শরিফগঞ্জ বাজার, বাবুরবাজার, ভরন বাজার সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশে নেতারা বক্তৃতা দেন। নেতারা মহানবী সা.কে রাষ্ট্রীয়ভাবে অবমাননা করায় ফ্রান্সের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা, দূতাবাস বন্ধ, রাসুলের শানে বেয়াদবির সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড এবং ফ্রান্সের সকল পণ্য বয়কটের জোর দাবি জানান।

এম. এ. হক চত্তরে প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে জকিগঞ্জ জমিয়তের সদস্যসচিব মাওলানা মুফতি মাহমুদ হুসাইন বলেন, ‘মহানবী সা.কে নিয়ে রাষ্ট্রীয়ভাবে অবমাননা করায় ফ্রান্সের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করুন।’ আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘ওআইসি’কে শক্ত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘দোকান থেকে ফ্রান্সের পণ্য ফেলে দেবেন, এটা আপনাদের ইমানি দায়িত্ব।’ পাশাপাশি যারা রাসুলের শানে বেয়াদরি করবে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দাবি করেন তিনি। ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে ফ্রান্সের সঙ্গে যাবতীয় কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে বলেন এই নেতা।

জকিগঞ্জ জমিয়তের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাওলানা বিলাল আহমদ ইমরান বলেন, ‘আল্লাহ পাকের হাবিবের সাথে বেয়াদবি হবে আর এদেশের তৌহিদি জনতা চুপ করে বসে থাকবে! দুটো একসাথে হতে পারে না। যতদিন এর প্রতিকার না হবে আমাদের আন্দোলন চলতেই থাকবে। এ আন্দোলন থামবে না। ইনশাআল্লাহ!’

সিলেট জেলা যুবজমিয়তের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রায়হান উদ্দীন বলেন, ‘নবীর ইজ্জত পুরো বিশ্বের মুসলিমদের চেয়ে দামি। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ গোটা মুসলিম বিশ্বের কাছে ক্ষমা না চাইলে এর চেয়েও ভয়াবহ আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। ফ্রান্সের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা ও তাদের বয়কট করা মুসলিমদের ঈমানি দায়িত্ব।’

ফ্রান্স সরকার মুসলিমদের কাছে ক্ষমা না চাইলে কাফন পরে রাস্তায় নামার হুঁশিয়ারি দেন জমিয়ত নেতা জার্নালিস্ট কে. এম. মামুন। এ সময় নবীপ্রেমিক তৌহিদি জনতা হাত তুলে এই আন্দোলনে নামতে ওয়াদাবদ্ধ হন।

সিলেট জেলা ছাত্রজমিয়তের সভাপতি মাওলানা ফরহাদ আহমদ তাঁর বক্তব্যে সরকারের উদ্দেশে বলেন, ‘ফ্রান্সের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করুন। এর জন্য যদি ইউরোপীয় ইউনিয়ন আমাদের ওপর কোনো অবরোধ আরোপ করতে চায়, তাহলে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করুন। এতে অর্থনীতি যদি ধস নামে তাহলে আমরা পেটে পাথর বেঁধে জীবন ধারণ করবো। তিনবেলার পরিবর্তে একবেলা আহার গ্রহণ করবো। আর গ্রহণ করতে না পারি, নবীর ইজ্জত বক্ষে ধারণ করে জীবন দেয়াকে নিজেদের জন্য গৌরব মনে করবো। আমরা অসভ্য ম্যাক্রোঁর কোনো দূতাবাস বাংলাদেশে দেখতে চাই না। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে স্পষ্ট পয়গাম পৌঁছে দিন। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতের কার্যক্রম মসজিদে শহর ঢাকায় বন্ধ করে দিন।’

বক্তব্য রাখেন: সিলেট জেলা ছাত্রজমিয়তের সাধারণ সম্পাদক লুকমান হাকিম, উপজেলা জমিয়তের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাওলানা জামিল আহমদ, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফারুক আহমদ, প্রচার সম্পাদক মাওলানা নাজমুল হুসাইন প্রমূখ।

দিনব্যাপী একর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন জকিগঞ্জ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ছাত্র জমিয়তের নেতাকর্মী, সমর্থক, এবং সর্বস্থরের তৌহিদী জনতা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com