শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০২:০০ অপরাহ্ন
Logo
নোটিস :
আমাদের সাইট-এ প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে,যোগাযোগ করুন>> 01712-129297>>>01712-613199>>>01926-659742>>>

জকিগঞ্জের সাংবাদিক হেলালী’র পিতা’র ইন্তেকাল : দাফন সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার: / ২৪৩ বার
আপডেটে : শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার: সিলেটের জকিগঞ্জ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক ও সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ সংবাদের প্রধান সম্পাদক রহমত আলী হেলালী’র পিতা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকুরীজীবী মোঃ আবুল হোসাইন (তারা মিয়া) তাপাদার ইন্তেকাল করেছেন। তিনি বৃহস্পতিবার ( ১৩ আগস্ট ) বিকাল প‍ৌনে ৩ টায় বার্ধক্যজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে জকিগঞ্জ উপজেলার কাজলসার ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। তিনি ৩ ছেলে ও ৪ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, সহকর্মী, শুভাকাঙ্খী ও গুণগ্রাহী রেখে যান। ওইদিন রাত ৯ টায় নিজ এলাকা কামালপুর শাহী ঈদগাহ মাঠে জানাযা শেষে তাকে কামালপুর কবরস্থানে দাফন করা হয়। জানাজায় ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে হাফিজ মাওলানা ইউসুফ আলী রহমত নগরী। জানাজায় দূর দূরান্ত থেকে শতশত মানুষ অংশ নেন। জানাজা পূর্ব এক সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নেন জকিগঞ্জ পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুস সবুর, শিক্ষক মামুনুর রশীদ স্বপন, মরহুমের ছোট ভাই প্রাক্তণ প্রধান শিক্ষক কবি আবুল কালাম আজাদ ও মরহুমের ছোট ছেলে সাংবাদিক রহমত আলী হেলালী।
জানা যায়, মরহুম তারা মিয়া ১৯৬৫ সালের দিকে পুলিশের তৎকালীন ডিআইজি প্রয়াত এম এ হকের হাতধরে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সড়ক পরিবহন সংস্থার গার্ড কমান্ডার হিসাবে চাকুরী জীবন শুরু করেন। ১৯৬৭ সালের ১৭ জুলাই সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের অধীনে বেসরকারিভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে জারীকারক হিসাবে চাকুরী শুরু করেন। পরবর্তীতে ১৯৮৩ সালের ১১ এপ্রিল তা সরকারিকরণ করা হয়। দীর্ঘ ৩০ বছরের চাকুরী জীবন শেষে ১৯৯৭ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি অবসর গ্রহণ করেন। চাকুরী জীবনে তিনি রাজধানী ঢাকার মিরপুর ১১নম্বর ও সিলেটের মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় প্রায় তিন যুগ অবস্থান করেন। অত্যন্ত ধর্মপ্রাণ মরহুম তারা মিয়া আলেম-ওলামা ও পীর-মাশায়েখ ভক্ত ছিলেন। তিনি শাহ সলিমুল্লাহ শিতালং (রহ.) এর নাতি মাওলানা তৈয়বুর রহমান (রহ.) এর মুরিদ ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি বরিশালের চরমোনাই’র মরহুম মাওলানা সৈয়দ মোঃ ইছহাক (রহ.) এর নিকট বাইয়াত গ্রহণ করেন। তিনি চরমোনাই’র মরহুম পীর মাওলানা সৈয়দ ফজলুল করীম (রহ.) এর খুবই বিশ্বস্থ ছিলেন। চরমোনাই’র বর্তমান পীর মাওলানা সৈয়দ রেজাউল করীম ২০০৯ সালে টিপাইমুখে ভারত সরকার কর্তৃক বাঁধ নির্মাণের প্রতিবাদে লংমার্চ সহ জকিগঞ্জ আসলে তিনি বিশাল লংমার্চ পরবর্তী সমাবেশের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন।
এদিকে মরহুমের জন্য আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, সহকর্মী, এলাকাবাসী ও দেশ-বিদেশে অবস্থানরত শুভাকাঙ্খীদের কাছে দোয়া চেয়েছেন তাঁর তৃতীয় ছেলে জকিগঞ্জের সিনিয়র সাংবাদিক রহমত আলী হেলালী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com